প্রাথমিক চিকিৎসা, সুস্থ্য থাকুন, স্বাস্থ্য টিপস, স্বাস্থ্য তথ্য

উচ্চ রক্তচাপ কমানোর সম্পূর্ন প্রাকৃতিক নিয়ম

বাংলাদেশের প্রায় মানুষের উচ্চ রক্তচাপ থাকে তুলনামূলক অনেক বেশি। অতিরিক্ত লবানাক্ত খাবার খেলে, প্রতিদিন ব্যায়াম না করলে, পরিমানমত কায়িক শ্রম না করলে রক্তচাপ বেড়ে যেতে পারে। এই লেখার মাধ্যমে আজ আমরা জানব কিভাবে প্রাকৃতিক উপায়ে উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রন করতে পারি।

সম্পূর্ন প্রাকৃতিক নিয়মে উচ্চ রক্তচাপ কমানোর কৌশল

অধিকাংশ বিশেষজ্ঞরা মনে করেন, কফি,চা, চকলেট এবং অন্যান্ন ক্যাফেইন যুক্ত উপাদানগুলী এড়িয়ে চললে উচ্চ-রক্তচাপ সমস্যা কম হয়।

Meditation – ধ্যান করুন

meditation
meditation

মেডিটেশন একটি অত্যন্ত কার্যকরী পদ্ধতি উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রনের। এটি আপনার মানসিক চাপ কমিয়ে ফেলতে সাহায্য করবে। অনেক ভাবে মেডিটেশন করা যায়। এক্ষেত্রে আপনি বিভিন্ন এপ্স এর সাহায্য নিতে পারেন।

Yoga – যোগ ব্যায়াম

yoga
yoga

ইয়োগা আরেকটি প্রাকৃতিক উপায় উচ্চ রক্ত চাপ নিয়ন্ত্রনের জন্য। ডাউন ওয়ার্ড ডগ, ব্যাকবেন্ড, হেডস্ট্যান্ড, ডান থেকে বায়ে ঘাড় ঘুরিয়ে ব্যায়াম করতে পারেন। ইয়োগা আপনাকে অনেক ঝুঁকি থেকে রক্ষা করবে। তার মধ্যে রয়েছে অকাল মৃত্যু ও উচ্চ রক্তচাপ সমস্যা ইত্যাদি।

Stop Smokingধূমপান বাদ দিন

Stop Smoking
Stoo smoking

উচ্চ রক্তচাপ এর একটি অতি সাধারন কারণ হল ধূমপান করা। সুতরাং, ধুমপান বাদ দিয়ে সুস্থ্য স্বাভাবিক জীবন যাপন করুন। ধুমপানের ফলে নিকোটিন সহ নানা বিষাক্ত জিনিস আমাদের রক্তের সাথে মিশে উচ্চ রক্তচাপ সহ নানাবিধ রোগ সৃষ্টি করে।

Black pepper – গোলমরিচ

Black pepper

বিশেষজ্ঞদের মতে গোলমরিচ উচ্চ রক্তচাপ কমিয়ে আনতে খুবই কার্যকরি একটি উপাদান। এটি রক্ত চলাচলের প্রবাহ উন্নত করে এবং রক্তের নালিগুলোকে প্রসারিত করে।এক কাপ উষ্ণ গরম পানিতে লেবুর রস, এক চা চামচ গোলমরিচ এবং সামান্য মধু মিশিয়ে সেবন করলে উচ্চ রক্তচাপ কমে যাবে।

উচ্চ রক্তচাপের কারনঃ

শতকরা ৯৫ জন মানুষ উচ্চ রক্ত চাপে ভুগলেও এ রোগের সঠিক কারণ এখনো নির্নয় হয়নি।

সম্ভাব্য কারণ সমূহঃ

  • মা-বাবার কারো High Blood Pressure থাকলে ঐ বংশের সন্তানদের উচ্চ রক্তচাপ হওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকে।
  • মোটা ও ভারীদেহী ব্যক্তিগণের এ রোগ বেশি হয়।
  • সাদ লবন বেশি খেলে ও ধুমপান করলে রক্ত চাপ বৃদ্ধি পায়।
  • সাংসারিক অশান্তি, কাজ কর্মের অত্যধিক চাপ থাকাও উচ্চ রক্তচাপের একটি প্রধান কারণ।
  • দুশ্চিন্তা, উদ্বেগ, মানসিক বা দৈহিক উৎপীড়ন, ভীতি ও উৎকণ্ঠায় রক্ত চাপ বৃদ্ধি পায়।
  • মদ্যপান, রাত্রি জাগরণ, অতিভোজনে উচ্চ রক্তচাপ দেখা দেয়ার সম্ভাবনা থাকে।
  • প্রস্রাবে আমিষ বের হতে থাকলে উচ্চ রক্ত চাপ বৃদ্ধি পেয়ে তা মৃত্যুর কারণ হতে পারে।
  • যাদের শিরার গতি দ্রুত, তাদের উচ্চ রক্ত চাপ দেখা দিতে পারে।
  • ডায়াবেটিস মেলিটাসে আক্রান্ত ব্যক্তিদের, যাদের রক্তের গ্লুকোজ অনিয়ন্ত্রিত উচ্চ রক্ত চাপ তাদেরই বেশি হয়ে থাকে।
  • অতিরিক্ত চর্বিযুক্ত খাদ্য বা যে সমস্ত খাদ্যে কোলেস্টোরেলের পরিমাণ বেশি  যেমনঃ গরুর মাংস, ডিমের হলুদ অংশ, ঘি, মাখন, গলদ চিংড়ি, কলিজা, মগজ, চকলেট খেলেও High Blood Pressure দেখা দেয়ার সম্ভাবনা থাকে।
  • কোন কারণে দেহের রক্ত জমাট বাঁধতে আরম্ভ করলেও রক্ত চাপ বৃদ্ধি পায়।

উচ্চ রক্ত চাপ রোগীর খাদ্য ও পথ্য

food for High Blood Pressure
food for High Blood Pressure

আঁশযুক্ত খাবার বেশী করে খাবেন। দেখবেন আপনার রক্ত চাপ কমে গেছে। উপরন্তু রক্তে কোলেষ্টেরলের দূর করতেও সহায়ক হয়। ফলমূল, শাকসব্জি, শস্য দানা, মটর শুটি ইত্যাদি আঁশযুক্ত খাবার খেতে হবে।

রসুনঃ যারা প্রতিদিন ৬০০ মিলিগ্রাম(৩/৪ কোয়া)রসুন খেয়ে থাকেন তাদের রক্তচাপ প্রায় ১১ ভাগ হ্রাস পায়।

কি কি খাবেন না?

High Blood Pressure রোগির পক্ষে প্রোটিন, শর্করা জাতীয় খাদ্য এবং চর্বি বা তৈল জাতীয় খাদ্য উপযোগি নয়। এজন্য গরুর মাংস, ডিমের হলুদ অংশ, ঘি মাখন, গলদা চিংড়ি, কলজে, নারিকেল, মগজ, চকলেট ইত্যাদি বর্জনীয়। কাঁচা দুধ, পাকা ফল, আপেল ইত্যাদি খেলে রক্ত চাপ বৃদ্ধি করে। কাঁচা সাদা লবনের ব্যবহার কমিয়ে দেওয়াও উপকারী। এছারা মদ, তামাক, ধুমপান, চা, কফি প্রভৃতি উত্তেজক দ্রব্য বিশেষভাবে বর্জনীয়।

উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রনের জন্য যদি আমাদের চিকিৎসকের পরামর্শ বিনামুল্যে পেতে চান তাহলে আমাদের ফেইসবুক পেইজে যোগাযোগ করুন এবং ওয়েবসাইট ভিজিট করুন।

About Goodmorning Aid

Goodmorning aid is a Bangladeshi Health E-Commerce site with wide range of natural homeopathic, Unani and Ayurvedic products. We are safe and trusted.

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *